ইউএনওদেরও বদলির নির্দেশ ইসির

আগের সংবাদ

ক্লাইমেট মোবিলিটি চ্যাম্পিয়ন লিডার অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত প্রধানমন্ত্রী

পরের সংবাদ

শহীদ নূতন চন্দ্র সিংহের দেশপ্রেমের আদর্শে উদ্বুদ্ধ হওয়ার আহ্বান

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১, ২০২৩ , ১০:২৫ অপরাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ১, ২০২৩ , ১০:২৫ অপরাহ্ণ

কুণ্ডেশ্বরী প্রতিষ্ঠান সমূহের প্রতিষ্ঠাতা শহীদ বুদ্ধিজীবী নূতন চন্দ্র সিংহ-এর জন্মদিনে তাঁর দেশপ্রেম ও আত্মত্যাগে নতুন প্রজন্মকে উদ্বুদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। চট্টগ্রামের রাউজানে কুণ্ডেশ্বরী ভবনে শুক্রবার নূতন চন্দ্র সিংহের প্রতিকৃতিতে পুস্পার্ঘ অর্পণ, আলোচনা ও প্রার্থনাসভায় নাগরিকবৃন্দ এ অভিমত ব্যক্ত করেন।

চট্টগ্রামের রাউজানে ১৯০০ সালের ১ ডিসেম্বর নূতন চন্দ্র সিংহ জন্মগ্রহণ করেন। ছোটবেলা থেকে কঠিন জীবন সংগ্রামের মধ্য দিয়ে বড় হয়ে ওঠা নূতন চন্দ্র সিংহ পরবর্তীতে নিজের একান্ত প্রচেষ্টায় গড়ে তোলেন কুণ্ডেশ্বরী ওষুধালয়সহ নারী শিক্ষার কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান যা রাউজানসহ চট্টগ্রামে নারীশিক্ষাসহ নারীদেরকে আত্মমর্যাদা নিয়ে নিজ পায়ে দাঁড়ানোর সাহস যুগিয়েছে। শুধু তাই নয়, মহান মুক্তিযুদ্ধের প্রাক্কালে তিনি মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের রাজনীতিবিদদের অন্যতম পৃষ্ঠপোষক ছিলেন।

একাত্তর সালে যখন অনেকেই পাকবাহিনীর হত্যা- নির্যাতন থেকে রক্ষা পেতে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে ভারতে আশ্রয় নিয়েছেন তখনও তিঁনি এই কুণ্ডেশ্বরী ছেড়ে যাননি নানাজনের শত অনুরোধ স্বত্বেও। তার পরিণতিতে তিঁনি নিজের জীবন দিয়ে যেনো চরম মূল্য দিয়েছেন। ১৯৭১ সালের ১৩ এপ্রিল কুখ্যাত রাজাকার সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী ( সা কা চৌধুরী) পাকবাহিনীর সহায়তায় কুণ্ডেশ্বরী ওষুধালয়ে গিয়ে কুণ্ডেশ্বরী মন্দিরের সামনেই এই মানবতাবাদী শিক্ষাপ্রেমিকে নির্মমভাবে খুন করেন। অবশ্য ২০১৫ সালে সাকা চৌধুরীকে ফাঁসিকাষ্ঠে ঝুলতে হয়েছে তার মানবতাবিরোধী কর্মকাণ্ডের জন্য।

মানবতার সেবায় ভারত উপমহাদেশের অন্যতম আয়ুর্বেদিক প্রতিষ্ঠান কুণ্ডেশ্বরী ওষুধালয় লিমিটেড প্রতিষ্ঠা করেন। কুণ্ডেশ্বরী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট তাঁর নামে ‘শহীদ নূতনচন্দ্র সিংহ স্মৃতি বৃত্তি’ ও গুণীজন সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠান করে থাকে। ২০১১ সালে স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ ক্ষেত্রে অসাধারণ ও কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ নূতন চন্দ্র সিংহকে (মরণোত্তর) ‘স্বাধীনতা পুরস্কার-২০১১’ প্রদান করা হয়।

শুক্রবার এই ত্যাগী মহাপ্রাণ ব্যক্তির ১২৩ তম জন্মবার্ষিকীতে কুণ্ডেশ্বরী ওষুধালয়, কুণ্ডেশ্বরী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসমুহ, কুণ্ডেশ্বরী অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে তাঁর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণসহ নানা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে তাঁর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানানো হয়।

“কুণ্ডেশ্বরী অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন”- এর পক্ষ থেকে জানানো হয়, শহীদ নূতন চন্দ্র সিংহের স্মৃতির প্রতি পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ ও শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদনের পাশাপাশি কুণ্ডেশ্বরীর পারিবারিক শ্মশান বেদীতে শহীদ নূতনচন্দ্র সিংহ এর সহধর্মিণী মনোরমা সিংহ, তাঁর দুই পুত্র সত্য সিংহ ও প্রফুল্ল রঞ্জন সিংহ, পুত্রবধূ প্রাক্তণ অধ্যক্ষা শ্রীমতী কল্যাণী সিংহ এর সমাধিস্থলেও পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

এসময় সংগঠকবৃন্দ বলেন, শহীদ নূতন চন্দ্র সিংহ-এর সৃষ্টি কীর্তি অবদান ও মহিমান্বিত ত্যাগের কারণে এই ভূখণ্ড এবং তার একটি অঞ্চল, আজীবন ঋণী হয়ে থাকবে। গৌরবোজ্জ্বল স্বাধীন বাংলাদেশের ইতিহাসে তিনি অমর অক্ষয় সমুজ্জ্বল ও চিরন্তন।

এআই

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়