সন্তান ফিরে পেতে হাইকোর্টে মার্কিন বাবার আইনী লড়াই

আগের সংবাদ

ভারতের সেই সুড়ঙ্গে আটকা সবাই উদ্ধার

পরের সংবাদ

হজ প্যাকেজ চার লাখ টাকা নির্ধারণ করতে লিগ্যাল নোটিশ

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৮, ২০২৩ , ৯:০৯ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২৮, ২০২৩ , ৯:০৯ অপরাহ্ণ

২০২৪ সাল বা ১৪৪৫ হিজরির পবিত্র হজ প্যাকেজের খরচ কমিয়ে ৪ লাখ টাকা নির্ধারণ করতে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) রেজিস্ট্রি ডাকযোগে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব বরাবর এই নোটিশ পাঠিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী আশরাফ-উজ জামান। নোটিশ পাওয়ার পাঁচ দিনের মধ্যে এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে। অন্যথায় এর প্রতিকার চেয়ে বাংলাদেশের ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ পদক্ষেপ নেয়া হবে।

এ বিষয়ে আইনজীবী আশরাফ-উজ জামান বলেন, সরকার সাধারণ হজ প্যাকেজ ৫ লাখ ৭৮ হাজার ৮৪০ টাকা নির্ধারণ করেছে। আর বিশেষ প্যাকেজ ৯ লাখ ৩৬ হাজার ৩২০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। নোটিশে হজের মোট খরচ ৪ লাখ টাকায় সীমাবদ্ধ রাখতে বলা হয়েছে। হজের মতো একটি ফরজ ইবাদতের অতিরিক্ত মূল্য নির্ধারণ করা বাধা সৃষ্টির নামান্তর।

আইনি নোটিশে বলা হয়, ২০২৪ সালের হজ প্যাকেজের (হিজরি-১৪৪৫) হজযাত্রী প্রতি খরচ অত্যন্ত অযৌক্তিক ও মানুষের নাগালের বাইরে। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের গেজেটে মক্কা ও মদিনায় বাড়ি ভাড়া বাংলাদেশি টাকায় ১ লাখ ৬৯ হাজার ৪১০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে, যা অনেক বেশি। এতে বোঝা যায় যে, সরকার হজযাত্রীদের সঙ্গে প্রতারণা করে বাড়ির মালিকদের অনুকূলে বাড়ি ভাড়া নির্ধারণ করেছে। গেজেটে পরিবহন ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৬ হাজার ৮৩৪ টাকা। যা অত্যন্ত অতিরিক্ত। এটা হজযাত্রীদের সঙ্গে প্রতারণা।

আর জমজমের পানির বিক্রয় মূল্য নির্ধারণ করা খুবই আপত্তিকর। এই বরকতময় পানি বিক্রি করে কোনো সরকার আর্থিক সুবিধা নিতে পারে না। এভাবে বাড়ি ভাড়া, পরিবহন খরচ, স্বাস্থ্য বীমা সার্ভিস চার্জ এবং জমজমের পানিতে ন্যূনতম ১৫ শতাংশ ভ্যাট আরোপ করা বেআইনি ও অনৈতিক। উভয় সরকারই হজযাত্রীদের ওপর এ ধরনের ভ্যাট আরোপ করতে পারে না। কারণ হজযাত্রীরা ভ্রমণকারী নয়, তারা সর্বশক্তিমান আল্লাহর মেহমান।

এআই

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়