অস্ত্রের ঝনঝনানি করতে দেবো না

আগের সংবাদ
বনানীতে হস্ত ও কুটির শিল্প মেলা অনুষ্ঠিত

বনানীতে হস্ত ও কুটির শিল্প মেলা অনুষ্ঠিত

পরের সংবাদ

আবার মঙ্গলগ্রহে মহাকাশযান পাঠাবে ভারত

প্রকাশিত: অক্টোবর ২, ২০২৩ , ২:২৯ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২, ২০২৩ , ২:২৯ অপরাহ্ণ

নয় বছর পর আবার পৃথিবীর পড়শি গ্রহ মঙ্গলে মহাকাশযান পাঠানোর তোড়জোড় শুরু করেছে ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা- ইসরো।

হিন্দুস্তান টাইম্‌সের প্রতিবেদন অনুযায়ী, মঙ্গলে পাঠানোর জন্য দ্বিতীয় যে মহাকাশযান প্রস্তুত করা হচ্ছে, তার নাম দেয়া হয়েছে মঙ্গলযান-২।

লাল গ্রহে একগুচ্ছ উদ্দেশ্যসাধনের লক্ষ্য নিয়ে পাড়ি দেবে ইসরোর এই মঙ্গলযান-২।

‘মার্স অরবিটর মিশন-২’-এর পরিচিত নাম ‘মঙ্গলযান-২’। মঙ্গলের মাটিতে পরীক্ষা নিরীক্ষা চালানোর জন্য এই মহাকাশযানের সঙ্গে মোট চারটি পেলোড পাঠাবে ইসরো।

সেগুলো মঙ্গলের আবহাওয়া, মাটির ধুলো পর্যবেক্ষণ করবে এবং সেই সংক্রান্ত অজানা তথ্য ভারতে পাঠাবে।

প্রথম পেলোডের নাম মার্স অরবিট ডাস্ট এক্সপেরিমেন্ট (মডেক্স)। এর মাধ্যমে মঙ্গলের মাটি থেকে নির্দিষ্ট উচ্চতায় ধুলোর উৎপত্তি, ঘনত্ব, গতিবিধি বোঝার চেষ্টা করা হবে। দ্বিতীয় পেলোড রেডিয়ো অকালটেশন।

এর মাধ্যমে মঙ্গলের বায়ুমণ্ডলে ইলেকট্রন, নিউট্রনের ঘনত্ব পরিমাপ, বায়ুমণ্ডলের সার্বিক চরিত্র বিশ্লেষণ করা যাবে। মঙ্গলযান-২-এর তৃতীয় পেলোড এনার্জেটিক আয়ন স্পেকটোমিটার (ইআইএস)।

মঙ্গলের বায়ুমণ্ডলে সৌরশক্তি কণা এবং সুপার থার্মাল সৌরবায়ু কণা চিহ্নিত করার জন্য এই পেলোড তৈরি করা হবে।

এছাড়া, চতুর্থ পেলোডটির নাম ল্যাংমিওর প্রোব অ্যান্ড ইলেকট্রিক ফিল্ড এক্সপেরিমেন্ট (এলপেক্স)।

মঙ্গলের বায়ুমণ্ডলে প্লাজমার পরিবেশ পর্যবেক্ষণের জন্য এই পেলোড তৈরি করা হচ্ছে। এর মাধ্যমে ইলেকট্রনের ঘনত্ব, ইলেকট্রনের তাপমাত্রা পরিমাপ করা যাবে।

এর আগে সম্প্রতি ইসরোর চন্দ্রযান-৩ অভিযান সফল হয়েছে। চাঁদের দক্ষিণ মেরুর কাছে মহাকাশযান নামিয়েছে ইসরো, যা এর আগে আর কোনও দেশ করতে পারেনি।

এআই

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়