বিএনপির কালো পতাকা মিছিল শুরু

আগের সংবাদ
রজনীকান্তের ভক্তদের জন্য সুখবর

রজনীকান্তের ভক্তদের জন্য সুখবর

পরের সংবাদ

চুমুকাণ্ড: পদ ছাড়তে রাজি নন স্প্যানিশ ফুটবল প্রধান

প্রকাশিত: আগস্ট ২৫, ২০২৩ , ৫:১৬ অপরাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ২৫, ২০২৩ , ৫:৪৪ অপরাহ্ণ
চুমুকাণ্ড: পদ ছাড়তে রাজি নন স্প্যানিশ ফুটবল প্রধান

নারী ফুটবল বিশ্বকাপের ফাইনালে ইংল্যান্ডকে ১-০ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় স্পেন। শিরোপা জয়ের পর দলের ফুটবলার জেনিফার হারমোসোর মাথায় দুই হাত রেখে চুমু দিয়ে বসেন স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি লুইস রুবিয়ালেস। এমন ঘটনায় বেশ সমালোচিত হন স্পেনের ফুটবল প্রধান। তারপরও স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতির পদ ছাড়তে রাজি নন রুবিয়ালেস।

স্প্যানিশ রেডিও স্টেশন ক্যাদেনা সেরের খবরে স্থানীয় সময় ‍বৃহস্পতিবার (২৪ আগস্ট) বলা হয়েছে, চুমুকাণ্ডের জেরে স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি লুইস রুবিয়ালেসকে পদচ্যুত করা হয়েছে। অথচ তিনি পদ ছাড়তে নারাজ। খবর দ্য গার্ডিয়ান, স্কাই স্পোর্টস, ডেইলি মেইলের

‘আমি পদত্যগ করবো না, করবো না। আমার আদর্শ রক্ষার জন্য আমি সমালোচিত হতেও প্রস্তুত। এটি একটি স্বতঃস্ফূর্ত চুম্বন ছিল। পারস্পরিক, উচ্ছ্বসিত ও সম্মতিপূর্ণ। এটাই মূল বিষয়। আমি শেষ পর্যন্ত লড়াই করবো’
– লুইস রুবিয়ালেস, সভাপতি, স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশন

ফিফার গভর্নিং বডি সাফ জানিয়ে দিয়েছে যে, ‘আমরা লুইস রুবিয়ালেসকে জানিয়ে দিয়েছি যে, গত ২০ আগস্ট ফিফা নারী বিশ্বকাপ ফাইনাল ম্যাচ শেষে অনভিপ্রেত ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আমরা তার বিরুদ্ধে অ্যাকশন নিতে বাধ্য হয়েছি।

তারা আরো জানায়, ‘লুইসের এহেন আচরণ ফিফা বিধিমালার ১৩ ধারার ১ ও ২ উপধারার সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। তার এই শৃঙ্খলাবিরোধী অপকর্মের কঠোর নিন্দা জানাই। ফিফার শৃঙ্খলা কমিটি এ বিষয়ে আরো তথ্য সাংবাদিকদের জানাবে।’

স্বস্তিতে নেই রয়্যাল স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশন আরএফইএফ। এ ঘটনায় ক্ষমা চেয়েছেন লুইস। যার কারণে মাদ্রিদে আপৎকালীন বৈঠক ডেকেছে তারা। ফেডারেশনের কর্মকর্তারা লুইসের ভবিষ্যত নিয়ে শঙ্কিত। বিষয়টি নিয়ে জোরালো আলোচনা হচ্ছে।

এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেস ও দ্বিতীয় ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী ইয়োলান্দা দিয়াজ রুবিয়ালেসকে সরাসরি পদত্যাগের নির্দেশ দেন তাকে। স্পেনের ফুটবল ফেডারেশনের (আরএফইএফ) জরুরি সভায় তিনি পদত্যাগ করবেন না বলে সাফ জানিয়ে দেন।

তিনি বলেন, ‘আমি পদত্যগ করবো না, করবো না। আমার আদর্শ রক্ষার জন্য আমি সমালোচিত হতেও প্রস্তুত। এটি একটি স্বতঃস্ফূর্ত চুম্বন ছিল। পারস্পরিক, উচ্ছ্বসিত ও সম্মতিপূর্ণ। এটাই মূল বিষয়। আমি শেষ পর্যন্ত লড়াই করবো।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, চুমুকাণ্ডের এ ঘটনা প্রথমে স্বাভাবিকভাবে নিলেও পরবর্তীতে আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানিয়ে রুবিয়ালেসের কঠোর শাস্তি দাবি করেন বিশ্বকাপজয়ী নারী ফুটবলার জেনিফার হারমোসো।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়