আজ বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস

আগের সংবাদ

দলিল লেখক ও সাব রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

পরের সংবাদ

বরগুনায় সাবেক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশিত: মে ৩, ২০২৩ , ৮:৪৫ পূর্বাহ্ণ আপডেট: মে ৩, ২০২৩ , ৮:৪৬ পূর্বাহ্ণ

বরগুনায় নির্বাচনী প্রতিহিংসার জেরে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে সাবেক ইউপি সদস্য পনুকে (৪৫) কুপিয়ে হত্যা। স্ত্রীসহ উভয় পক্ষের ৬ জন আহত।

মঙ্গলবার (২ মে) রাত সাড়ে ৮টার দিকে সদর উপজেলার আয়লা পাতাকাটা ইউনিয়নের পাকুরগাছিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, এদিন পাকুরগাছিয়া এলাকায় দলবল নিয়ে ঠান্ডা গ্রুপের লোকজনের ওপর হামলা চালায় পনু গ্রুপ। এ সময় ঠান্ডা গ্রুপও রামদা, টেঁটাসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাদের ওপর পাল্টা আক্রমণ চালায়। পরে পনু গ্রুপের প্রধান সাবেক ইউপি সদস্য পনু মিয়াকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে জখম করা হয়। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে পনু ঘটনাস্থলেই মারা যান।

অপরদিকে পনুর সমর্থকদের হামলায় ঠান্ডা বাহিনীর প্রধান ঠান্ডা মিয়াসহ বেশ কয়েকজন গুরুতর জখম হন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং আহতদের উদ্ধার করে বরগুনা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। আহতদের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ঠান্ডা গ্রুপ ও পনু গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। বিরোধের জেরে সাবেক ইউপি সদস্য পনু মিয়াকে এর আগেও বেশ কয়েকবার কুপিয়ে গুরুতর জখম করে ঠান্ডা বাহিনী।

নিহতের স্ত্রী ছবি আক্তার বলেন, ঠান্ডা বাহিনীর ২০ থেকে ২৫ জন লোক রামদা, টেঁটা নিয়ে আমার স্বামীকে কুপিয়ে মেরে ফেলেছে। আমি আমার স্বামীকে বাঁচাতে গেলে তারা আমার ওপরও হামলা চালায়। এছাড়া আমার ছেলে-মেয়েরও কোনো খোঁজ পাচ্ছি না।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আবদুল হালিম বলেন, খবর পেয়ে পুলিশের বেশ কয়েকটি টিম ঘটনাস্থলে যায়। আমরা আহতদের উদ্ধার করে তাদের হাসপাতালে পাঠাই। মরদেহকে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে বের করতে আমাদের অভিযান চলমান।

কেএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়