গাইবান্ধা-৫ উপনির্বাচন: ১৪৫ কেন্দ্রে নির্বাচনী সরঞ্জাম

আগের সংবাদ

হীরকজয়ন্তীতে বছরব্যাপী ছাত্রলীগের কর্মসূচি

পরের সংবাদ

১০ লাখে খুনের মামলা নিষ্পত্তি!

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৩, ২০২৩ , ৩:৩৯ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ৩, ২০২৩ , ৩:৪৩ অপরাহ্ণ

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে খুনের ঘটনায় নিহতের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা দিয়ে আপস-মীমাংসার ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে।

সোমবার (২ জানুয়ারি) বিকেলে উপজেলা পরিষদ হলরুমে হত্যা মামলার আসামি এবং বাদীপক্ষের লোকদের উপস্থিতিতে এ আপস-মীমাংসা হয়। এ সময় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এমএম মোশাররফ হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

জানা যায়, উপজেলার পরমেশ্বরদী ইউনিয়নের পরমেশ্বরদী গ্রামের আ. রাজ্জাক শেখের ছেলে মো. শহিদুল শেখ গ্রাম্য দলাদলিকে কেন্দ্র করে গত বছরের ২৩ জুলাই খুন হন। শহিদুল শেখ ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সহ সভাপতি মাসুদ শেখের সমর্থক। ওই খুনের ঘটনায় ২৯ জনকে আসামি করে গত বছরের ২৬ জুলাই মামলা হয়। নিহতের ফুপাতো ভাই আ. মান্নান ওরফে টিন মান্নান বাদী হয়ে পরমেশ্বরদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মান্নান মাতুব্বরকে প্রধান আসামি করে ওই মামলা করেন।

সোমবার বিকেলে উপজেলা পরিষদ হলরুমে শহিদুল শেখ খুনের ঘটনায় এক সালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সালিশে নিহতের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা এবং খুন পরবর্তী সহিংসতায় বাড়িঘর ভাঙচুরের শিকার হওয়া ক্ষতিগ্রস্ত আসামি পক্ষের লোকদের ক্ষতিপূরণ বাবদ ২ লাখ টাকা দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়।

এ ব্যাপারে মাসুদ শেখ বলেন, সোমবার উপজেলা চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে এ ব্যাপারে একটি সালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এলাকায় শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার স্বার্থে আপস-মীমাংসা হয়েছে। সালিশে আসামি পক্ষের লোকেরা নিহতের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা এবং ওই সময় বাদি পক্ষের লোকজন কর্তৃক আসামি পক্ষের লোকদের বাড়িঘর ভাঙচুর করায় ক্ষতিপূরণ বাবদ ২ লাখ টাকা প্রদান করবে বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

মামলার বাদী আব্দুল মান্নান ওরফে টিন মান্নান সালিশ বৈঠকে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানান। দশ লাখ টাকা নিয়ে নিষ্পত্তির কথা তিনি অস্বীকার করেন।

এনজে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়