রাজার রাজ্যাভিষেক উপলক্ষে ব্রিটেনজুড়ে ছুটি 

আগের সংবাদ

ডেমোক্র্যাটরা মিডটার্ম জিতবে: বাইডেন

পরের সংবাদ

ফরিদপুর উপনির্বাচন নিয়ে ইসি আলমগীর

শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতা না থাকায় ভোটের হার কম

প্রকাশিত: নভেম্বর ৬, ২০২২ , ৮:৪১ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ৬, ২০২২ , ৮:৪৬ অপরাহ্ণ

ফরিদপুর উপনির্বাচনে ভোটের হার কম হবার কারণ জানাতে গিয়ে নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর বলেছেন, শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতা না থাকায় ফরিদপুর-২ আসনে উপ-নির্বাচনে ভোটের হার কম হয়েছে।

এই উপ-নির্বাচনের পরদিন রবিবার (৬ নভেম্বর) ঢাকায় নির্বাচন ভবনে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এই কারণ দেখান তিনি।

শনিবার অনুষ্ঠিত ফরিদপুর-২ আসনের উপ-নির্বাচনে ২৬ দশমিক ২৪ শতাংশ ভোট পড়ে।

এ প্রসঙ্গে ইসি আলমগীর বলেন, যেহেতু সাধারণ নির্বাচনের আর অল্প সময় আছে, তাই স্বাভাবিকভাবেই ভোটাররা মনে করেন যে এখানে তো সরকারের কোনো পরিবরর্তন হবে না। আর যিনি নির্বাচিত হবেন, তিনিও কাজ করার তেমন একটা সময় পাবেন না। তাই ভোটারদের আগ্রহ কম। প্রার্থীদেরও তেমন আগ্রহ নেই।

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রসঙ্গ টেনে এই কমিশনার বলেন, সেখানে কিন্তু ভোটের হার অনেক বেশি। পৌরসভাতে ভোটের হার অনেক বেশি। কারণ সেখানে শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়েছে। সেখানে পাঁচ বছরের জন্য মেয়াদ। যেখানে মেয়াদ বেশি থাকে, শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী থাকে, স্বাভাবিকভাবেই সেখানে ভোটার উপস্থিতি বেশি থাকে। এটিই আমরা মনে করি। হয়তো গবেষণা করলে সঠিকটা বোঝা যাবে।

তিনি বলেন, কত শতাংশ ভোট পড়লে নির্বাচন গ্রহণযোগ হবে, এই ধরনের কোনো শর্ত নেই। তাই ভোট যদি শান্তিপূর্ণ হয়, নিয়ম মত হয় এবং কোনো অনিয়ম না হয়- সমস্ত নিয়মকানুন যদি ফলো করে, তাহলে অবশ্যই তো গ্রহণযোগ্য ভোট বলতে হবে।

এমকে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়