ছায়ানটে শ্রোতার আসরে গাইলেন চন্দনা ও মহিতোষ

আগের সংবাদ

উৎসবের রঙে রাঙানো ছুটির সন্ধ্যা

পরের সংবাদ

আগে অঙ্ক শিখুন, বিএনপি নেতার প্রতি মেয়র তাপস

প্রকাশিত: অক্টোবর ২৮, ২০২২ , ৯:৫৬ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২৮, ২০২২ , ৯:৫৬ অপরাহ্ণ

# রিজার্ভ ইস্যুতে বিএনপিকে অর্থনীতি রপ্ত করার আহ্বান

অঙ্ক শিখেন, অর্থনীতি বুঝেন তারপরে সরকারে যাওয়ার খোয়াব দেখেন। দুই-তিনটা জনসমাবেশ করলে সরকারে যাওয়া যাবে না বলে উল্লেখ করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) সন্ধ্যায় রমনা-শাহবাগ থানা ও এর আওতাধীন ১৯,২০ ও ২১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপি নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে এই কথা বলেন তিনি।

মেয়র তাপস বলেন, মির্জা ফখরুল বললেন, প্রধানমন্ত্রী দেশের রিজার্ভ নাকি চিবিয়ে খায়নি, রিজার্ভ গিলে খেয়েছে। তার ওই বক্তব্যের নিন্দা ও ঘৃণা জানাই। কোনোদিন কিছু গিলে খাননি শেখ হাসিনা। গিলে খেয়েছেন আপনারা।

তিনি আরো বলেন, ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল দেশ পাঁচবার দুর্নীতিতে চাম্পিয়ন হয়েছে। এক মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে পারেন নাই। জাতিকে শুধু ধোঁকা দিয়েছিলেন। হাওয়া ভবন আর খোয়াব ভবনের সকল অর্থ লুটপাট আর গিলে খেয়েছেন আপনারা। ২০০৬ সাল পর্যন্ত ২৯ বছর দেশ শাসন করে বাংলাদেশে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ রেখে গেছিলেন মাত্র ছয় বিলিয়ন ডলার। দেশনেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সেটা সঞ্চয় করতে করতে ২০২১ সালে গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৪৮ বিলিয়ন ডলারে।

মির্জা ফখরুলের উদ্দেশে করে মেয়র বলেন, আপনি তৎকালীন সময়ে বিএনপির অর্থ প্রতিমন্ত্রী ছিলেন। ধারণা করেছিলাম, অর্থনীতির কিছুটা নিশ্চয় বুঝেন। কিন্তু আপনার বক্তব্যে আবারো প্রমাণিত হলো ‘অল্প বিদ্যা ভয়ংকরী’। আপনি কীভাবে প্রতিমন্ত্রী ছিলেন, আমার বোধোদয় হয় না।

বিএনপির নেতাকর্মীদের তাপস আরো বলেন, আপনারা বলেন আওয়ামী লীগ বাস বন্ধ করে দিয়েছে বিএনপির জনসমাবেশের ভয়ে। আওয়ামী লীগ কখনোই বাস বন্ধ করেনি। বাসের মালিকেরা বন্ধ করে দিয়েছে। কারণ, ২০১৩-১৫ সাল পর্যন্ত আপনারা আন্দোলনের নামে বাস পুড়িয়েছেন, মানুষ মেরেছেন। আপনাদের প্রত্যাখ্যান করে বাস মালিকেরাই বাস বন্ধ করে দিয়েছে। আপনাদের বাসে উঠতে দেবে না।

আওয়ামী লীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের শাহবাগ থানার সভাপতি আলহাজ্ব জিএম আতিকুর রহমানের সভাপতিত্ব ও মহানগর দক্ষিণের শাহবাগ থানার সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এমএ হামিদ খান ও রমনা থানার সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলামের যৌথ সঞ্চালনায় সম্মেলনে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য দেন মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো. হুমায়ুন কবির। এছাড়া, সম্মেলনে শাহবাগ ও রমনা থানার অন্তর্গত ওয়ার্ড কাউন্সিলরসহ তৃণমূল পর্যায়ের নেতারা বক্তব্য রাখেন।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়