ধর্ষিতার বিরুদ্ধে মিছিল করছেন নুরু: ঢাবি ছাত্রী

আগের সংবাদ

নিয়োগ বাণিজ্যে মাদ্রাসা সুপার, ক্ষুব্ধ অভিভাবকরা

পরের সংবাদ

বিবস্ত্র করে নির্যাতন: সোহাগ-রাসেলের স্বীকারোক্তি

প্রকাশিত: অক্টোবর ৯, ২০২০ , ৯:৩০ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ৯, ২০২০ , ৯:৪৪ অপরাহ্ণ

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন ও ভিডিও ধারণের চাঞ্চল্যকর ঘটনায় দায়ের করা মামলায় আরও দুই আসামি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। শুক্রবার (৯ অক্টোবর) আলোচিত এই মামলার আসামি আনোয়ার হোসেন সোহাগ ও নুর হোসেন রাসেল ১৬৪ ধারায় এই স্বীকারোক্তি দেন। এ নিয়ে মামলাটিতে চারজন স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দেয় ।

নোয়াখালী জেলা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) গুলজার আহমেদ জুয়েল বলেন, শুক্রবার দুপুরে সোহাগ ও রাসেলকে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের ২নং আমলি আদালতে হাজির করা হয়। আদালতের জ্যেষ্ঠ হাকিম এস এম মোসলে উদ্দিন মিজান ১৬৪ ধারায় আসামিদের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এদিকে এই ঘটনায় দায়ের করা নির্যাতন ও পর্নোগ্রাফি মামলা দুটি অধিকতর তদন্তের জন্য পুলিশ হেড কোয়ার্টার থেকে বৃহস্পতিবার রাতে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনে (পিবিআই) হস্তান্তর করা হয়েছে। দায়িত্ব পেয়ে পিবিআইয়ের একটি দল নির্যাতিতা ওই নারীকে নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

শুক্রবার সকালে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন নোয়াখালী ইন্সেপেক্টর সুভাষ চন্দ্র পালের নেতৃত্বে একলাশপুর ইউনিয়নের জয়কৃষ্ণপুর গ্রামের নির্যাতিতার বাড়ি পরিদর্শন করে পিবিআই তদন্ত প্রতিনিধি দল। ঘটনা প্রকাশ হওয়ার পর থেকে নির্যাতিতার বাড়িতে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

পুলিশ জানায়, গৃহবধূকে নির্যাতন ও ভিডিও ধারণের ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। যার মধ্যে নির্যাতনের মামলাটি ইন্সেপেক্টর মামুনুর রশিদ পাটোয়ারী ও পর্নোগ্রাফি মামলাটি ইন্সপেক্টর মোস্তাফিজুর রহমানকে তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনের সময় তদন্তকারী কর্মকর্তারা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রামের পিবিআই কর্মকর্তা ফারুক আহমেদ ও মামলা দুটির সাবেক তদন্তকারী কর্মকর্তা বেগমগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক মোস্তাক আহমেদ এবং বেগমগঞ্জ থানা পুলিশ।

এদিকে পঞ্চম দিনও ধর্ষক ও নির্যাতনকারীদের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ বেগমগঞ্জ শাখা, মানবসেবায় বাংলাদেশ নোয়াখালী জেলা কমিটিসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়