যে কারণে বাদ পড়লেন ম্যাগুয়্যার

আগের সংবাদ

চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীর কোটিপতি হওয়ার গল্প

পরের সংবাদ

আগামীর তারকা আনসু ফাতি

প্রকাশিত: আগস্ট ২৬, ২০২০ , ১১:০৩ অপরাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ২৬, ২০২০ , ১১:০৩ অপরাহ্ণ

বার্সেলোনায় একটি কথাই সবদিকে ঘুরপাক খাচ্ছে। আর তা হলো লিওনেল অন্য ক্লাবে যোগ দিতে চাইছেন। তবে মেসিকে রেখে দিতে চাচ্ছে স্পেনিশ জায়ান্টরা। কারণ গত ১৬ বছর ধরে বার্সার মূল কারিগর হিসেবে সার্ভিস দিয়ে যাচ্ছেন তিনি। মেসি এই মৌসুমে বার্সা ছাড়বে কি ছাড়বে না এটি কদিন বাদেই বোঝা যাবে।

যদিও মেসি এই আগামী মৌসুমে বার্সার হয়ে খেলেনও তাতেও আর খুব বেশি হলে তার সার্ভিস আর ২-৩ বছরের জন্য পাবে কাতালানরা। এরপর মেসির বিকল্প হিসেবে কাউকে না কাউকে ঠিকই হাল ধরতে হবে। বলতে গেলে সামনে হাল ধরার জন্য ইতোমধ্যেই খেলোয়াড় পেয়ে গেছে বার্সা। আর তিনি হলেন ১৭ বছর বয়সি আনসু ফাতি।

ফাতি ইতোমধ্যেই বার্সেলোনার মূল দলে খেলেছেন। তবে মূল দলে তিনি মাঝে মাঝে এসে খেলেছেন। এখন পর্যন্ত তিনি বার্সার ‘বি’ দলের খেলোয়াড়। কিন্তু আসছে মৌসুম থেকেই বার্সার মূল দলে স্থায়ীভাবে খেলা শুরু করবেন ফাতি। তার সঙ্গে নতুন করে চুক্তি করে মূল দলে নিয়ে আসা হচ্ছে তাকে।

ফাতি বার্সার হয়ে এখন পর্যন্ত ৩৩টি ম্যাচ খেলেছেন। আর এই ৩৩টি ম্যাচ খেলে তিনি গোল করেছেন ৮টি। এমন অল্প বয়সে তার পারফরমেন্স দেখে বার্সার চিরপ্রতিদ্বদ্বী রিয়াল মাদ্রিদ ও ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তাকে দলে ভেড়াতে চেয়েছিল। কিন্তু বার্সা জানিয়ে দিয়েছে ফাতিকে তারা বিক্রি করবে না। কারণ তার মধ্যে দলের ভবিষ্যৎ দেখতে পাচ্ছেন বার্সার কর্তারা। শোনা গিয়েছিল ফাতির জন্য প্রায় ১০০ মিলিয়ন ইউরো নিয়ে প্রস্তুত ছিল রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু তার জন্য এত টাকার প্রস্তাব পেয়েও বার্সা ফাতিকে বিক্রির জন্য রাজি হয়নি।

বার্সার অ্যাকডেমির খেলোয়াড় আনসু ফাতি মাত্র ১৬ বছর বয়সে মূল দলে জায়গা করে নেন। আর এত কম বয়সে সুযোগ পেয়েই একের পর এক রেকর্ড ভেঙেছেন তিনি।

বার্সার হয়ে তিনি প্রথম গোলটি করেই রেকর্ডের মালিক হয়ে যান। আর সেই রেকর্ডটি হলো সবচেয়ে কম বয়সে বার্সার হয়ে গোল করা ও স্পেনের লা লিগার ইতিহাসে তৃতীয় সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে গোল করা। বার্সার ঘরের মাঠ ন্যু ক্যাম্পে খেলা সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড়ও তিনি।

এর আগে বার্সার হয়ে খেলতে নেমেই রেকর্ড বুকে নাম লেখান তিনি। বার্সেলোনা ক্লাবের হয়ে ১৬ বছর ২৯৮ দিনের মাথায় খেলতে নেমে দ্বিতীয় সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে ম্যাচ খেলার রেকর্ড গড়েন। বার্সার হয়ে লা লিগায় রেকর্ড গড়ার পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও রেকর্ড গড়েন তিনি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মাত্র ১৭ বছর ৪০ দিনের মাথায় গোল করে তিনি পুরো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে গোল করার রেকর্ড গড়েন।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়