সাংবাদিকদের কাছে ক্ষমা চাইলেন স্বাস্থ্য মহাপরিচালক

আগের সংবাদ

ফুড ভ্যালু চেইন উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে জাইকা

পরের সংবাদ

বন্ধ ডিলারদের সার উত্তোলন

আমদানি ইউরিয়া নিয়ে বিপাকে যমুনা সার কারখানা

প্রকাশিত: আগস্ট ২৩, ২০২০ , ৪:৪৩ অপরাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ২৩, ২০২০ , ৪:৪৬ অপরাহ্ণ

যমুনা সার কারখানার আমদানি নিম্নমানের সার জমাট বেঁধে নষ্ট হয়ে যাওয়ায় সার উত্তোলন বন্ধ রেখেছেন বিসিআইসি’র ডিলাররা। এতে প্রায় ৪১ হাজার মেট্রিক টন ইউরিয়া সার নিয়ে বিপাকে পড়েছেন কারখানা কর্তৃপক্ষ। কারখানাটি জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের তারাকান্দিতে অবস্থিত।

কারখানার বিক্রয় বিভাগ সূত্রে জানা যায় , চলতি মাসের ডিলারদের মধ্যে সার বরাদ্দ দেয়া হয় ৪৭ হাজার ৮৫১ মে. টন। কারখানার কমান্ড এরিয়ায় প্রতি ডিলারদের বরাদ্দ ১২ মে. টন। এই ১২ মে. টনের মধ্যে যমুনা সার কারখানার উৎপাদিত ৯ মে. টন ও বিদেশ থেকে আমদানি ৩ মে. টন সার গ্রহণ বাধ্যতামূলক। কারখানায় বাইরে থেকে আমদানিকৃত ৪০ হাজার ৯০০ মে. টন ও যমুনায় উৎপাদিত ৮২ হাজার ৬৮০ মে. টন সার মজুদ রয়েছে। এ অবস্থায় আমদানিকৃত নিম্নমানের সার গ্রহণ একযোগে সব ডিলার সম্পূর্ণভাবে বন্ধ করে দিয়েছে। সার সরবরাহ বন্ধ হলে উৎপাদিত সার মজুদ রাখার সমস্যা হবে বলে বিক্রয় শাখা জানায়।

এ বিষয়ে মেসার্স আকলিমা ট্রেডাসের মালিক মো. আকবর আলী অভিযোগ করে বলেন, প্রতি মাসে বিসিআইসি’র তালিকাভুক্ত ডিলারদের যমুনার ইউরিয়ার সঙ্গে আমদানি তিন মে. টন সার গ্রহণ বাধ্যতামুলক করা হয়েছে। এই তিন মে. টন আমদানি সারের বস্তা দীর্ঘদিনের পুরনো, ছেঁড়া-ফাঁটা, জমাটবাঁধা, গলিত ও পঁচা থাকে। এসব সার কৃষক ক্রয় না করায় মোটা অঙ্কের লোকসান গুণতে হয় ডিলারদের। আমরা ৩ মে. টন পরিবর্তে ১ মে. টন দেয়ার দাবি জানিয়েছি। কর্তৃপক্ষ এটা সুরাহা না করায় আমদানিকৃত পঁচা সার বরাদ্দ বন্ধের দাবিতে সার উত্তোলন ও সরবরাহ বন্ধ করে দেন ডিলাররা।

এ ব্যাপারে যমুনা সার কারখানার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সুজিদ মজুমদার বলেন, ডিলাররা সার গ্রহণ বন্ধ রেখেছে। সারগুলো সরকার আমদানি করেছে, ডিলারদের তো নিতেই হবে। তবে যে সারগুলো ভালো সেগুলো ডিলারদের দেয়া হবে এবং বিসিআইসি’র কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে শিগগিরই সরবরাহ শুরু হবে।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়