রাজধানীতে ৩০ হাজার ইয়াবাসহ আটক ৩

আগের সংবাদ

কারিগরি শিক্ষার উন্নয়নে সরকার সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে : নাহিদ

পরের সংবাদ

‘প্রধান বিচারপতিকে নিয়ে এখন তামাশা চলছে : রিজভী

প্রকাশিত: অক্টোবর ১৩, ২০১৭ , ৩:৩০ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ১৩, ২০১৭ , ৩:৩০ অপরাহ্ণ

প্রধান বিচারপতিকে নিয়ে এখন তামাশা চলছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভকেট রুহুল কবির রিজভী।

জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে শুক্রবার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এমন মন্তব্য করেন। মানববন্ধনটির আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে রিজভী বলেন, ‘এখন আওয়ামী লীগের মন্ত্রীরা ডাক্তার ও ইঞ্জিনিয়ারের কাজ করছেন। প্রধান বিচারপতিকে নিয়ে যাতে কেউ টু শব্দ করতে না পারে, তাই সুপ্রিম কোর্টকে আয়ত্বে নেয়া হয়েছে। আইনমন্ত্রী প্রধান বিচারপতির ক্যান্সারের সার্টিফিকেট দিচ্ছেন। তিনি আইন নিয়ে পড়ালেখা করেছেন, তিনি কবে আবার এমবিবিএস পাস করলেন?’
বিএনপির এই মুখপাত্র আরও বলেন, আওয়ামী লীগের মন্ত্রীরা ডাক্তার ও ইঞ্জিনিয়ারের কাজ করছেন। এ বিষয় নিয়ে প্রধান বিচারপতির দফতর কথা বলছে না, অথচ আইনমন্ত্রী ও অ্যাটর্নি জেনারেল কথা বলেন।’
সরকারকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ‘আপনারা সুপ্রিম কোর্টকে প্রতিপক্ষ মনে করলেন। পার্লামেন্টে গালাগালি করছেন। অকথ্য-অশ্রাব্য ভাষায় প্রধান বিচারপতিকে নিয়ে মন্তব্য করেছেন। পৃথিবীর কোথাও প্রধান বিচারপতিকে গালাগালি করার নজির নেই।’
খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা নিয়ে তিনি বলেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসনের দেশে ফিরে আসার সময় হয়েছে। খালেদা জিয়া যাতে ভয় পেয়ে যায়, ভয়ে দেশে না আসেন এ জন্য তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। সরকার সর্বোচ্চ আদালতকে টার্গেট করে খালেদার বিরুদ্ধে চক্রান্ত করছে।’
একই মানবন্ধনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান বলেন, ‘বাংলাদেশের জনগণের ভালবাসা বর্তমান অগণতান্ত্রিক প্রধানমন্ত্রীর চেয়ে খালেদা জিয়া বেশি পেয়েছেন। তিনি মিথ্যা মামলায় ভয় পান না। সরকার তার বিরুদ্ধে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে বিরাট অন্যায় করেছে। আমরা এই গ্রেফতারি পরোয়ানার বিরুদ্ধে রাজপথে প্রতিরোধ গড়ে তুলব।’
সরকার বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের দমনের পথ বেছে নিয়েছে মন্তব্য করে প্রবীণ এই নেতা বলেন, ‘আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সরকারের নয়, জনগণের সেবক। সরকার সেই আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে দিয়ে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের দমন করছে। আমরা আইনের শাসন চাই, বিশৃঙ্খলা চাই না। সরকার জানে, জনগণ তাদের সাথে নেই, তাই তারা দমনের পথ বেছে নিয়েছে। কিছু দিন মানুষকে ভয় দেখিয়ে রাখা যায়। সারা জীবন সব মানুষকে ভয় দেখিয়ে রাখা যায় না। সরকারকে এটা বুঝতে হবে।’
আয়োজক সংগঠনের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হেলেন জেরিন খান প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়